চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৮ মে, ২০২০

গণপিটুনি দিলেন মহিলারা সীতাকু-ে ৫ম শ্রেণির ছাত্রীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা

৬ মার্চ, ২০২০ | ৪:২৯ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা হ সীতাকু-

গণপিটুনি দিলেন মহিলারা সীতাকু-ে ৫ম শ্রেণির ছাত্রীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা

সীতাকু-ে ৫ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টাকালে এক ব্যক্তিকে গণপিটুনি দিয়েছে গ্রামের মহিলারা। তবে পিটুনি খেয়েও পালিয়ে যায় ধর্ষক। বুধবার উপজেলার বাঁশবাড়িয়া কোট্টাবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। থানায় দায়েরকৃত এজাহার সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বাঁশবাড়িয়ার কোট্টাবাজার এলাকার বাসিন্দা আবুল কাশেম (৫০) দীর্ঘদিন ধরে তার প্রতিবেশী ৫ম শ্রেণি পড়–য়া এক ছাত্রীকে নানাভাবে যৌন হয়রানি করছিলো। দেখা হলেই বিভিন্ন ছল ছুতোয় মেয়েটির গায়ে হাত দিতো। বিশেষত

স্কুলে আসা যাওয়ার পথেই সে এসব করতো। এসব কথা জানার পর মেয়ের মা মেয়েটিকে স্কুলে নিয়ে যাচ্ছিলেন। কিন্তু বুধবার ঘরে কাজ বেশি থাকায় মেয়েটি একাই স্কুলে যাচ্ছিল। বাড়ি থেকে কিছুদূর যাবার পর আবুল কাশেম মেয়ের কাছে গিয়ে তাকে জোর করে তুলে একটি ধান ক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এসময় মেয়েটি ভয়ে চিৎকার করতে শুরু করলে ঘটনাস্থলের কাছাকাছি পুকুরে গোছল করতে আসা কিছু মহিলা ঘটনাস্থলের দিকে এগিয়ে গিয়ে আবুলকে পিটুনি দেন এবং চরম আতংকিত হয়ে থাকা মেয়েটিকে উদ্ধার করেন। কিন্তু মার খেয়েও পালিয়ে যায় লম্পট আবুল কাশেম। এ ঘটনায় বুধবার রাতে মেয়েটির মা বাদি হয়ে সীতাকু- থানায় আবুল কাশেমের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মেয়েটির মা জানান, আবুল কাশেমের স্ত্রী ও চারটি সন্তান আছে। কিন্তু সে প্রায়ই তার ছোট্ট মেয়েটির গায়ে হাত দিতো। তার কুনজরের কথা জেনে তিনি মেয়েকে সাথে নিয়ে স্কুলে যাতায়াত করছিলেন। কিন্তু বুধবার তিনি না থাকার সুযোগে মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টা করেছে ঐ লম্পট। সীতাকু- থানার ওসি (তদন্ত) শামীম শেখ বলেন, এ ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। আবুল কাশেম আতœগোপন করেছে। কিন্তু তাকে গ্রেপ্তারে আমরা অভিযান চালাচ্ছি।

The Post Viewed By: 28 People

সম্পর্কিত পোস্ট