চট্টগ্রাম বুধবার, ০৩ জুন, ২০২০

বন্দর ছাড়েনি তিন জাহাজ, ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ৩:০১ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রাইম মুভার শ্রমিকদের কর্মবিরতি

বন্দর ছাড়েনি তিন জাহাজ, ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত

বেতন বাড়ানো ও নিয়োগপত্র প্রদানের দাবিতে চট্টগ্রাম বন্দর থেকে বেসরকারি ১৯টি ডিপোতে গত বুধবার সকাল থেকে আমদানি-রপ্তানি পণ্যবাহী কন্টেইনার পরিবহন বন্ধ করে দিয়েছে প্রাইম মুভার ট্রেইলর শ্রমিকরা। এর ফলে বন্দর থেকে ডিপোতে এবং ডিপো থেকে বন্দরে আমদানি-রপ্তানি ও খালি কনটেইনার আনা-নেওয়া বন্ধ হয়ে যায়। শ্রমিকদের এই ধর্মঘটের কারণে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে চট্টগ্রাম বন্দরে। চট্টগ্রাম বন্দরে সময়মতো তৈরি পোশাক ভর্তি রপ্তানির কনটেইনার না পৌঁছার ফলে গতকাল বৃহস্পতিবার তিনটি জাহাজ বন্দর ছেড়ে যেতে পারেনি। এতে উদ্বেগ বাড়ছে রপ্তানিকারক, শিপিং এজেন্ট ও বন্দর ব্যবহারকারীদের মধ্যে। তবে চট্টগ্রাম বন্দর সূত্র জানায়, বন্দরের কার্যক্রম স্বাভাবিক চলছে। তবে ডিপোর কনটেইনারবাহী গাড়ির চালক-শ্রমিকদের ধর্মঘটের কারণে ৩টি জাহাজ শিডিউল অনুযায়ী বন্দর ছেড়ে যেতে পারেনি। ধর্মঘটের বিষয়ে আমরা সার্বক্ষণিক খোঁজখবর রাখছি। দ্রুত এই সংকটের সমাধান হবে আশাকরি।বাংলাদেশ ইনল্যান্ড কনটেইনার ডিপোস এসোসিয়েশনের (বিকডা) সচিব রুহুল আমিন জানান, বর্তমানে বিভিন্ন ডিপোতে ৫৯ হাজার কনটেইনার রয়েছে। এর মধ্যে ৮ হাজার ৭০০ রপ্তানি পণ্যভর্তি, ৭ হাজার ৮০০ আমদানি পণ্যভর্তি এবং বাকিগুলো খালি কনটেইনার। এগুলো পরিবহনের জন্য দেশে ৮ হাজারের বেশি প্রাইম মুভার বা ট্রেইলার গাড়ি আছে। এর মধ্যে ডিপো মালিকদের অধীনে আছে মাত্র সাড়ে আটশ’ গাড়ি।

চালক-শ্রমিকদের দাবি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, শ্রমিকদের স্থির বেতন ও কাজের ওপর ভাতা মিলিয়ে সরকার নির্ধারিত মজুরি কাঠামোর চেয়ে তিন গুণ বেশি দেওয়া হয়। কিন্তু তাদের দাবি স্থির বেতন, সরকার নির্ধারিত বেতনের সমান করা। এটি একটি স্থির খাতকে অস্থিতিশীল করার পাঁয়তারার অংশ হিসেবে কনটেইনারবাহী গাড়ির একাংশের এই ধর্মঘট।

প্রাইম মুভার মালিক সমিতির কার্যকরী সভাপতি ও মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সদস্যসচিব আবু বক্কর ছিদ্দিক বলেন, এটি ডিপোর নিজস্ব কনটেইনারবাহী গাড়ির চালক-শ্রমিকদের ধর্মঘট। এর বাইরে যেসব কনটেইনারবাহী গাড়ি আছে সেগুলো স্বাভাবিক নিয়মে চলছে। শ্রমিকরা দাবি নিয়ে তাদের কর্মসূচি পালন করছেন। এর সঙ্গে প্রাইম মুভার ট্রেইলার মালিকদের সম্পর্ক নেই।

The Post Viewed By: 59 People

সম্পর্কিত পোস্ট