চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

যুবলীগ কর্মী খুনের মামলা জামিন পেলেন কাউন্সিলর তৌফিক আহমেদ চৌধুরী

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ২:১১ পূর্বাহ্ণ

আদালত প্রতিবেদক

যুবলীগ কর্মী খুনের মামলা জামিন পেলেন কাউন্সিলর তৌফিক আহমেদ চৌধুরী

যুবলীগ কর্মী নুরে এলাহী খুনের মামলায় জামিন মহানগর যুবলীগ নেতা ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌফিক আহমেদ চৌধুরী জামিন লাভ করেছেন। তৌফিক তিনি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন ১ নম্বর দক্ষিণ পাহাড়তলী ওয়ার্ড কাউন্সিলর। গতকাল বুধবার চট্টগ্রাম চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বেগম কামরুন নাহার রুমি শুনানি শেষে অভিযুক্তের জামিন মঞ্জুর করেন। শুনানি শেষে আদালত জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন। জেলা কোর্ট পরিদর্শক সুব্রত ব্যানার্জী পূর্বকোণকে বলেন, কাউন্সিলর

তৌফিক আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন। আদালতসূত্রে জানা যায়, ২০১৬ সালের ৫ মে রাতে হাটহাজারী উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের সরকারহাট বাজারে গুলিতে নিহত হন স্থানীয় যুবলীগ কর্মী নুরে এলাহী।
খুনের ঘটনায় নিহতের মা আনোয়ারা বেগম বাদি হয়ে হাটহাজারী থানায় অজ্ঞাতনামার বিরুদ্ধে মামলা করেন। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) ২০১৮ সালের জুলাই মাসে মামলা তদন্ত করে কাউন্সিলর তৌফিককে আসামি করে চার্জশিট দেয়।

এরপর বাদি চার্জশিটের বিরুদ্ধে নারাজি দেন। এরপর আদালত সিআইডিকে মামলাটি অধিকতর তদন্তের নির্দেশ দেন। সিআইডি এমাসের শুরুতে চলতি মাসের তৌফিককে আসামি করে আদালতে চার্জশিট দেয়। এতে বলা হয়, মির্জাপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী নুরুল আফছারের নির্বাচনী প্রচারণার শেষ দিনে ২০১৬ সালের ৫ মে বিকেলে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা শেষে সন্ধ্যায় সরকারহাট বাজারে নির্বাচনী কার্যালয়ের সামনে বসে আড্ডা দিচ্ছিলেন নুরে এলাহীসহ তার বন্ধুরা। রাত ৯টার দিকে সেখানে কাউন্সিলর তৌফিক আসেন। তিনি তার একটি পিস্তল দেখিয়ে উপস্থিত সবার উদ্দেশে বলেন, নতুন অটোমেটিক অস্ত্র কিনেছেন। অনেক গুলি লোড করা যায়। এ সময় তৌফিক দুটি ফাঁকা গুলি ছোড়েন। নিচের দিকে আরেকটি ছোড়ার সময় নুরে এলাহীর গায়ে লাগলে তিনি গুরুতর আহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন ।

এসময় তৌফিক ঘটনাস্থল থেকে সরে যান। একইদিন এলাহী চমেক হাস্পাতালে মৃত্যুবরণ করেন।
সিআইডির এ চার্জশিটের বিরুদ্ধেও বাদি নারাজি দিলে আদালত মামলাটি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাটহাজারী সার্কেলকে তদন্তের নির্দেশ দেন। এমামলার ধার্য তারিখে অভিযুক্ত আদালতে হাজির না হওয়ায় গত ২৬ জানুয়ারি আদালত কাউন্সিলর তৌফিকের জামিন বাতিল করে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। এরপর গতকাল তিনি আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেন করলে আদালত অভিযুক্তের জামিন মঞ্জুর করেন।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 126 People

সম্পর্কিত পোস্ট