চট্টগ্রাম শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

বায়ান্নেই রোপণ করা হয় স্বাধীনতার বীজ

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ৫:৫৭ পূর্বাহ্ণ

পূর্বকোণ ডেস্ক

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের আলোচনা সভায় বক্তারা

বায়ান্নেই রোপণ করা হয় স্বাধীনতার বীজ

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত কর্মসূচির আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, বায়ান্নেই রোপণ করা হয় স্বাধীনতার বীজ।
স্যার মরিস ব্রাউন ইন্টা.স্কুল : মহান একুশকে স্মরণ করে পালন হয়ে গেল স্যার মরিস ব্রাউন ইন্টারন্যাশনাল স্কুল আয়োজিত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও শহীদ দিবস এবং একুশে হাতের লেখা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান। বিভিন্ন শ্রেণির শিক্ষার্থীরা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করে। একুশের তাৎপর্যকে তুলে ধরে শহীদদের স্মরণ করে শিক্ষার্থীবৃন্দ। আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো গানের মাধ্যমে শহীদ বেদি ফুলে ফুলে ভরে যায়। অনুষ্ঠানে গান, আবৃত্তিরও আয়োজন করা হয়। একুশ উপলক্ষে হাতের লেখা প্রতিযোগিতায় যারা প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় হয় তাদের মেডেল দিয়ে পুরস্কৃত করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্কুল পরিচালনা পর্ষদের পরিচালকবৃন্দ। শহীদদের স্মরণ করে তারা শহীদ বেদিতে পুষ্প অর্পণ করেন।
বাকলিয়া উচ্চ বিদ্যালয় : চান্দগাঁও থানাধীন বাকলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে মাতৃভাষা দিবস যথাযথ শ্রদ্ধা ও সম্মানের সাথে পালিত হয়। প্রধান শিক্ষকের নেতৃত্বে শিক্ষক মন্ডলী ও ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য প্রদান করে ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান জানান। পরে বিদ্যালয়ের হলরুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. জাকের হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির শিক্ষানুরাগী সদস্য ও ৬নং পূর্ব ষোলশহর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সহ-সম্পাদক মো. আনোয়ার হোসেন বাবুল। বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক বরুণ চক্রবর্তীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় আরো আলোচনা করেন বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ জয়নাল আবেদীন, সিনিয়র শিক্ষক বাবু, মেঘনাদ চৌধুরী, মনিকা সেন, মো. নিজাম উদ্দীন, মিসেস আকতার বেগমসহ অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ।
এসো সবাই ছবি আঁকি স্কুল : ২১ ফেব্রুয়ারি এসো সবাই ছবি আঁকি স্কুল কর্তৃক শিশু-কিশোর চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, পুরস্কার বিতরণ ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। ২৫ নম্বর রামপুর ওয়ার্ড, বড় পুকুরের দক্ষিণপাড়, ঈদগাঁও, হালিশহর, চট্টগ্রাম স্কুল মিলনায়তনে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন মো. শাহাজাহান মিলন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সমাজসেবক ও রাজনীতিবিদ মো. সাইফুল ইসলাম। তিনি বলেন, দেশকে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে হলে বর্তমান প্রজন্মকে সুশিক্ষিত করে গড়ে তুলতে হবে। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন ফারহানা আফরোজ জেনিফার সভানেত্রী চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগ, ২৫নং রামপুর ওয়ার্ড, লায়ন আব্দুল্লাহ আল হোসেন কো-অর্ডিনেটর, লায়ন্স ক্লাব অফ চিটাগাং প্লাটিনাম, আজহারুল ইলসাম অপু-সমন্বয়ক, সমমনা আদর্শ শিশু-কিশোর ফোরাম ও উক্ত প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মো. আলমগীর। অনুষ্ঠান শেষে প্রতিযোগীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
ইউনেস্কো ক্লাব চট্টগ্রাম জেলা: সংগঠনের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় আগ্রাবাদস্থ ল্যান্ডমার্ক হোটেলে সংগঠনের সহ সভাপতি শরীফুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো. মনির উদ্দিনের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন নারী নেত্রী রেখা আলম চৌধুরী, বিশেষ অতিথি ছিলেন সিনিয়র সাংবাদিক আবসার মাহফুজ। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন তসলিম উদ্দিন আহমেদ, মুক্তিযোদ্ধা নীল রতন দাশ গুপ্ত, ইঞ্জিনিয়ার ফারুক হোসাইন, আবছার উদ্দিন অলি, মঞ্জুরুল আলম, রাজীব সাহা, এস.আই জুয়েল, ফাহি বেগম, আকতার হোসেন কিরন।
বক্তারা বলেন, নতুন প্রজন্মের কাছে একুশের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে হবে। বাংলা ভাষার যে মর্যাদা, সেটিকে অক্ষুন্ন রেখে সর্বস্তরে বাংলা ভাষার প্রচলন নিশ্চিত করতে হবে। ইউনেস্কো ক্লাব বাংলা ভাষাকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে বিশ্ব দরবারে বাংলা ভাষাকে সম্মানিত করেছেন। যেটি আমাদের জন্য অত্যন্ত আনন্দের।

সিডিএ পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ : চান্দগাঁও থানাধীন সিডিএ পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজে প্রভাতফেরি, রচনা-চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা, অধ্যক্ষের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানের আহবায়ক প্রভাষক সাইফুল ইসলাম মানিক। শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মধ্য হতে বক্তব্য রাখেন প্রভাষক মাহমুদা পারভীন, সহকারী শিক্ষক এস.এম এরশাদ হোসেন ও শিক্ষার্থী তাহিয়া তাসকিন, মাসতুরা মাসিয়াত মুনিরা। সমাপনী বক্তব্য রাখেন প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ নুরুল আলম।
চট্টগ্রাম ওয়াসা : ২১ ফেব্রুয়ারি মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে সরকারী কর্মসূচির আওতায় চট্টগ্রাম ওয়াসায় বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। কর্মসূচির মধ্যে ছিল প্রধান কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও প্রভাতফেরীসহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং প্রধান কার্যালয়ের কনফারেন্স রুমে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের উপর আলোচনা সভা। সভায় চট্টগ্রাম ওয়াসার উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। আলোচনাকালে বক্তারা মহান শহীদ দিবসের বিভিন্ন তাৎপর্যপূর্ণ দিক তুলে ধরেন।কাজী নূরজাহান শীলা এর সঞ্চালনায় সভায় চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী এ,কে,এম ফজলুল্লাহ, উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ( প্রশাসন), সচিব, প্রধান প্রকৌশলী এবং সর্বস্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচি বিশ^বিদ্যালয় ক্যাম্পাসে উদযাপিত হয়েছে। বিশ^বিদ্যালয়ের ‘স্মরণ’ চত্বর থেকে কালো ব্যাজ ধারণ করে চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতারের নেতৃত্বে মহান ভাষা আন্দোলনের অমর সংগীত ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি’ এর সাথে শুরু হয় প্রভাত ফেরি। চবি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন চবি মউপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার। বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু চত্বরে অনুষ্ঠিত হয় ‘ভাষা আন্দোলন ও বঙ্গবন্ধু’ শীর্ষক আলোচনা সভা। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন চবি উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার। পরে উপাচার্য চবি জাদুঘরের উদ্যোগে আয়োজিত ‘ দেশে দেশে বর্ণমালা ও একুশের সংকলন’ শীর্ষক ৭ দিন ব্যাপি (২১-২৭ ফেব্রুয়ারি) প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন।স্বাগত বক্তব্য রাখেন চবি রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কে এম নুর আহমদ। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চবি ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন প্রফেসর এস এম সালামত উল্যা ভূইয়া, চবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর মো. জাকির হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. অঞ্জন কুমার চৌধুরী, সিনেট সদস্য প্রফেসর এ বি এম আবু নোমান, সিন্ডিকেট সদস্য প্রফেসর ড. মো. মহীবুল আজিজ, শহীদ আবদুর রব হলের প্রভোস্ট প্রফেসর ড. এ কে এম মাঈনুল হক মিয়াজী, সংগীত বিভাগের সভাপতি প্রফেসর সুকান্ত ভট্টাচার্য, অফিসার সমিতির সভাপতি রশীদুল হায়দার জাবেদ, চবি. ক্লাব (ক্যাম্পাস ও শহর)-এর পক্ষে ক্লাব (ক্যাম্পাস)-এর সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আল-আমীন, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, চবি’র সভাপতি প্রফেসর ড. মো. রাশেদ-উন-নবী, চবি কর্মচারী সমিতির সভাপতি মো. আনোয়ার হোসেন ও কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি জনাব মো. আবদুল হাই। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কে এম নুর আহমদ ও ডেপুটি রেজিস্ট্রার (তথ্য) দিবাকর বড়–য়া।
ইউএসটিসি : বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম (ইউএসটিসি), আই এ এইচ এস, বিবিএমএইচ, আনোয়ারা নূর নার্সিং ইনস্টিটিউট এর যৌথ উদ্যোগে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২০ পালিত হয়। এ উপলক্ষে ২১ ফেব্রুয়ারি প্রভাতফেরীর মাধ্যমে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুস্পমাল্য অর্পণ করা হয়। প্রভাতফেরীতে ইউএসটিসি’র উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. জাহাঙ্গীর আলম, উপ উপাচার্য প্রফেসর ড. নুরুল আবছার, আইএএইচএস-এর অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. এ এম এম এহতেশামুল হক, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার দিলীপ কুমার বড়–য়া, বিবিএমএইচ-এর ভারপ্রাপ্ত পরিচালক ডা. এম. কামরুল হাসান, ইংরেজী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের চেয়ারম্যান মোঃ আবদুর রশিদ, ফার্মেসী বিভাগের চেয়ারম্যান আবদুল মোতালেব, প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যসহ ইউএসটিসি, আইএএইচএস, বিবিএমএইচ, এএনএনআই-এর বিভিন্ন স্তরের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, চিকিৎসক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
চুয়েট : চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযু্িক্ত বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এর ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম বলেছেন, একুশ আমাদের চেতনা, আমাদের অহংকার। সেই চেতনার উপর ভর করেই আমরা চূড়ান্ত স্বাধীনতা পেয়েছি। চুয়েট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস-২০২০ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

অধ্যাপক ড. মো. রবিউল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন স্থাপত্য ও পরিকল্পনা অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মো. মইনুল ইসলাম, যন্ত্রকৌশল অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. জামাল উদ্দিন আহম্মদ, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. ফারুক-উজ-জামান চৌধুরী এবং ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মশিউল হক। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বিভাগীয় প্রধানগণের পক্ষে পুরকৌশল বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. সুদীপ কুমার পাল, প্রভোস্টগণের পক্ষে শহীদ মোহাম্মদ শাহ হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. রনজিৎ কুমার সূত্রধর, শিক্ষক সমিতির পক্ষে সাধারণ সম্পাদক ড. মো. সানাউল রাব্বী, কর্মকর্তা সমিতির পক্ষে সভাপতি প্রকৌশলী সৈয়দ মোহাম্মদ ইকরাম, কর্মচারী সমিতির পক্ষে সভাপতি মো. জামাল উদ্দিন এবং শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন ‘১৫ ব্যাচের ফাহিম শাকিল। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন যন্ত্রকৌশল বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. সানাউল রাব্বী, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এটিএম শাহজাহান, মানবিক বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব নাহিদা সুলতানা ও সহকারী রেজিস্ট্রার (সমন্বয়) জনাব মোহাম্মদ ফজলুর রহমান। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও বিভিন্ন বিভাগের বিপুল সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রীরা অংশগ্রহণ করেন।
সিভাসু : চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে (সিভাসু) মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২০ পালিত হয়েছে । বিশ^বিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনের মধ্য দিয়ে দিবসের কর্মসূচি শুরু হয়। প্রথমে বিশ^বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন উপাচার্য প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশ। এরপর শিক্ষক সমিতি, কর্মকর্তা সমিতি, কর্মচারী ইউনিয়ন, অনুষদ, আবাসিক হল, প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরামসহ বিশ^বিদ্যালয়ের বিভিন্ন ছাত্র এবং সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে বিশ^বিদ্যালয় ক্যাম্পাসে স্থাপিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব-এর ম্যুরালে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। অমর একুশের অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে ছিল শহীদ মিনার চত্বরে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ ও কালোব্যাজ ধারণ, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং শহীদদের রুহের মাগফেরাত কামনায় বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত।শহীদ দিবসের বিভিন্ন কর্মসূচিতে বিশ^বিদ্যালয়ের অনুষদীয় ডিন, ইনস্টিটিউটের পরিচালক, রেজিস্ট্রার, বিভাগীয় প্রধান, প্রভোস্ট, বিভিন্ন দপ্তরের পরিচালক, প্রক্টরসহ শিক্ষক, কর্মকর্তা, ছাত্রছাত্রী ও কর্মচারীবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।
চিটাগাং উইম্যান চেম্বার : চট্টগ্রামের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গত ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির পক্ষ থেকে ভাষা শহীদদের স্মরণে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি এর ভাইস প্রেসিডেন্ট রেখা আলম চৌধুরী, পরিচালক রেবেকা নাসরীন, মোস্তারি মোর্শেদ স্মৃতি, ফেরদৌস ইয়াসমিন খানম ও সাবিনা কাইয়্যুমসহ চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি এর অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।
পোর্ট সিটি ইন্টা.ইউনিভার্সিটি : পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির প্রাঙ্গণে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রেখে মহান ভাষা আন্দোলনে যারা শহীদ হয়েছেন তাদের স্মৃতিতে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়েছে।
অত:পর বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণ থেকে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. নূরল আনোয়ার এর নেতৃত্বে শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারিবৃন্দ চট্টগ্রাম শহীদ মিনারের মূল বেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ভাষা শহীদদের প্রতি বিন¤্র শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে জাতীয় জীবনের সর্বস্তরে বাংলা ভাষার মর্যাদা রক্ষা করার কথা বলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য। এছাড়াও তিনি মহান ভাষা শহীদদের আদর্শ ধারণ করার জন্য তরুণদের প্রতি আহবান জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডীন, রেজিষ্ট্রার, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, প্রক্টর ও বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহ অন্যান্য শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।
আইআইইউসি : আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম (আইআইইউসি) এর দিনব্যাপী অমর একুশে কর্মসূচি আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রফেসর কে. এম গোলাম মহিউদ্দীন। আইআইইউসি’র প্রো ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আলী আজাদীর সভাপতিত্বে অনুিষ্ঠত দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম-১৫ আসনের সংসদ সদস্য ও বিশ্ববিদ্যালয়ের দাওয়াহ ডিপার্টমেন্টের অধ্যাপক ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী। আলোচনা পর্বে অংশগ্রহণ করেন আইআইইউসি’র কলা ও মানবিক অনুষদের ডীন ড. মোহাম্মদ রিয়াজ মাহমুদ, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মো. মাশরুরুল মওলা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন আইআইইউসি’র রেজিস্ট্রার কর্নেল মোহাম্মদ কাসেম, পিএসসি (অব:)। অন্যান্যের মধ্যে অনুষ্ঠানে আইআইইউসি’র ট্রেজারার, ডীনগণ, প্রক্টর, সহকারী প্রক্টরবৃন্দ, এডিশনাল এস পি (নর্থ), চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ কর্মকর্তাগণ এবং শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন স্টুডেন্ট এ্যাফেয়ার্স ডিভিশনের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মোহাম্মদ মামুনুর রশীদ। দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার মধ্যে ছিল কুমিরায় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে একুশের প্রথম প্রহরে নিজস্ব শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ, ২১ ফেব্র“য়ারী সকালে শোভাযাত্রা, সকাল দশটায় আলোচনা সভা এবং দোয়া ও মুনাজাত অনুষ্ঠান। শহীদদের স্মরণে দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এমডিপি’র কোঅর্ডিনেটর প্রফেসর ড. বি.এম. মফিজুর রহমান।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 199 People

সম্পর্কিত পোস্ট