চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

অনুবাদকের কাজ শুধু ভাষান্তর নয় অর্থবহ ও পাঠযোগ্য করা

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ৬:৫৯ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

বইমেলায় সাহিত্য সম্মেলনের সমাপনীতে আবদুল হাই

অনুবাদকের কাজ শুধু ভাষান্তর নয় অর্থবহ ও পাঠযোগ্য করা

একজন অনুবাদকের কাজ শুধু ভাষান্তর করা নয়, ভিন্ন ভাষায় লেখা বইটি পাঠকের কাছে নির্ভুল অর্থসহ সঠিকভাবে বুঝার উপযুক্ত করে তোলা। এতেই একজন অনুবাদকের অনুবাদ সার্থক হয়। অনুবাদক যে বিষয় অনুবাদ করতে যাবেন তাকে আগে সে বিষয়ে পরিপূর্ণ জ্ঞান রাখতে হবে। অমর একুশে বইমেলার ১১তম দিনে ‘অনুবাদ ও ভ্রমণ’ নিয়ে তিন পর্বের সাহিত্য সম্মেলনে সাহিত্যিক হাসনাত আবদুল হাই একথা বলেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাতটায় জিমনেশিয়াম মাঠে অমর একুশে বইমেলার মঞ্চে ‘অনুবাদ ও ভ্রমণ’ নিয়ে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন আয়োজিত মুজিববর্ষে বঙ্গবন্ধুকে নিবেদিত অমর একুশে বইমেলায় অনুষ্ঠিত তিন দিনের সাহিত্য সম্মেলন পর্বেরও শেষ হয়। সাহিত্যিক ও লেখক আলম খুরশিদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে হাসনাত আবদুল হাই এর

সভাপতিত্বে আলোচক ছিলেন অনুবাদক ও প্রাবন্ধিক ফারুক মইনুদ্দিন ও ভ্রমণ সাহিত্যিক ডা. অঞ্জনা দত্ত।

ফারুক মইনুদ্দিন বলেন, যেকোনো বিদেশি বইকে পাঠকের বোধগম্য করে তুলতে পারলে অনুবাদ করা বইয়ের প্রতি পাঠকের আগ্রহ জন্মাবে। প্রতিটি অনুবাদককে মনে রাখতে হবে তারা শুধু একটি বই অনুবাদ করছে না, বরং তারা একটি দেশের সাংস্কৃতিকে অনুবাদ করছে। অনুবাদককে বই অনুবাদ করার সময় প্রতিটি টীকার দিকে নজর দিতে হবে। এটি গল্প, উপন্যাস বা প্রবন্ধের সঠিক রূপে অর্থ প্রকাশ করবে। আর দেশি-বিদেশি পাঠক সবাই লেখার সঠিক অর্থ বুঝতে পারবে।

ডা. অঞ্জনা দত্ত বলেন, ভ্রমণ গল্প একটি মজার গল্প। যেকোনো ভ্রমণে অর্জন হয় নানা শিক্ষা। এটিকে গল্প আকারে রূপ দিয়ে পাঠকের পড়ার উপযুক্ত করতে কিন্তু কষ্ট কম নয়। তাই লেখককে ভ্রমণ বিষয়ক বই পড়া ও জ্ঞান রাখতে হবে।

আলোচনা শেষে নাট্য শিল্পী শুভ্র বিশ্বাসের অভিনয়ে একক নাটক ‘বীরাঙ্গনা’ মঞ্চস্থ হয়। এর পরে সঙ্গীতানুষ্ঠানের মাধ্যমে মঞ্চ অনুষ্ঠানের শেষ হয়। এছাড়া বিকেল বাড়ার সাথে সাথে বই মেলায় ছিল বই প্রেমীদের ভিড়। ক্রেতারা বইয়ের দোকান ঘুরে ঘুরে দেখছেন আর নিজেদের পছন্দের বই কিনছেন। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নজরুল ইসলামের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, বই আমার খুব প্রিয়। বিখ্যাত লেখকদের পাশাপাশি তরুণ লেখকদের লেখা বই পড়তেও আমার খুব ভালো লাগে। বই মেলা মানেই তো নতুন পুরাতন বইয়ের সমাহার। আজও বেশ কয়েকটি বিখ্যাত লেখকের বইয়ের সাথে কিছু নতুন বইও নিয়েছি। তরুণ লেখক নওশাদ বিন ইব্রাহীমের লেখা ‘প্রায়শ্চিত’ নামে বইটিও কিনেছি। এখানে পাঁচটি গল্প দেখা যাচ্ছে। শিরোনাম পড়ে মনে হচ্ছে গল্পগুলো ভালো হবে। আমাদের উচিত বিখ্যাত লেখকদের পাশাপাশি তরুণ লেখকদের বই কিনে তাদের উৎসাহিত করা। দাঁড়িকমা প্রকাশনীতে পাওয়া যাচ্ছে বইটি।
তরুণ লেখক নওশাদ বিন ইব্রাহীম বলেন, পাঁচটি গল্প নিয়ে বইটি লিখেছি। আশা করি পাঠকের ভালো লাগবে। একজন মানুষ জীবনে যে অপকর্ম করবে জীবনেই তার প্রায়শ্চিত্ত করবে। এমন পাঁচটি বাস্তব গল্প নিয়ে আমার এ বই।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 162 People

সম্পর্কিত পোস্ট