চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

একুশ অসাম্প্রদায়িক ও প্রগতিশীল সমাজ গড়ার প্রেরণা যোগায়

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ৬:০০ পূর্বাহ্ণ

শহীদ দিবসের আলোচনা সভায় মোছলেম উদ্দিন আহমদ এমপি

একুশ অসাম্প্রদায়িক ও প্রগতিশীল সমাজ গড়ার প্রেরণা যোগায়

দক্ষিণ জেলা আ. লীগ : দক্ষিণ জেলা আ. লীগ সভাপতি ও চট্টগ্রাম-৮ আসনের সাংসদ মোছলেম উদ্দীন আহমদ বলেছেন, ১৯৫২ এর ফেব্রুয়ারিতে ছাত্র-জনতার এক অসাধারণ গণ-আন্দোলনের মধ্য দিয়ে বাঙালি জাতির মুক্তির স্বপ্ন জাগ্রত হয়েছিল। তিনি আরো বলেন, ২১ আমাদের অপসংস্কৃতির বিরুদ্ধে লড়াই করে প্রগতিশীল অসাম্প্রদায়িক বিজ্ঞানভিত্তিক সমাজ গড়ার প্রেরণা যোগায়। এই প্রেরণা নিয়েই লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে একাত্তরে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়। ভাষা আন্দোলনের চেতনা,৭১’র মুক্তিযুদ্ধের শপথ ও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে বাংলাদেশের সর্বকালের সফল প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছে একটি সমৃদ্ধশীল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে। তিনি গতকাল বুধবার বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস পালন উপলক্ষে দক্ষিণ জেলা আ. লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্য রাখছিলেন। দক্ষিণ জেলা আ. লীগের সা. সম্পাদক মুফিজুর রহমান তার বক্তব্যে বাংলাদেশকে ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশ ও ২০৪১ সালে ধনী রাষ্ট্র গড়ে তোলার সংগ্রামে জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অকুন্ঠ সমর্থন অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান।

দক্ষিণ জেলা আ. লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ দাশের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন, দক্ষিণ জেলার সা. সম্পাদক মফিজুর রহমান, সহ-সভাপতি মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ ইদ্রিস, সহ-সভাপতি এডভোকেট এ কে এম সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, বোয়ালখালী উপজেলা চেয়ারম্যান মো. নুরুল আলম, সাবেক এমপি চেমন আরা তৈয়ব, এডভোকেট মির্জা কছির উদ্দিন, এডভোকেট জহির উদ্দিন, খোরশেদ আলম, আবু জাফর, এডভোকেট মুজিবুল হক, নুরুল আবছার চৌধুরী, বোরহান উদ্দিন এমরান, এডভোকেট আবদুর রশিদ প্রমুখ।
ইসলামিক ফাউন্ডেশন : মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদ্যাপন উপলক্ষে সরকারি সিদ্ধান্তের আলোকে আগামীকাল ২১ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বা’দ জুম‘আ ভাষা শহীদদের রুহের মাগফিরাত এবং দেশের শান্তি, সমৃদ্ধি ও অগ্রগতি কামনা করে মসজিদে সমবেত মুসল্লীদেরকে নিয়ে দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করার জন্য জেলার সকল মসজিদের খতিব/ইমামবৃন্দের প্রতি ইসলামিক ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

সন্দীপনা : সন্দীপনা কেন্দ্রীয় সংসদ আয়োজিত ৫ দিনব্যাপী কর্মসূচির ২য় দিনে সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ও উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সংগঠনের দোস্ত বিল্ডিংস্থ কার্যালয় আঙ্গিনায় অনুষ্ঠিত হয়। মুক্তিযোদ্ধা ও মহানগর ডেপুটি কমান্ডার সাধন চন্দ্র বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মসূচির উদ্বোধন ঘোষণা করেন রওশন আরা চৌধুরী। প্রধান অতিথি ও প্রধান আলোচক ছিলেন আচার্য দীনেশ চন্দ্র সেন রিসার্স সোসাইটি ভারতের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক দেবকন্যা সেন এবং সিএমপি পুলিশ এর সাবেক এডিসি কবি জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী। বিশেষ অতিথিবৃন্দের মাঝে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক প্রণব মিত্র চৌধুরী, লায়ন পূর্ণেন্দু বিকাশ বড়–য়া, সংগঠক হাবিবুর রহমান হাবিব, সাংবাদিক তাজুল ইসলাম রাজু, প্রধান শিক্ষক তরনী কুমার সেন, মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউসুফ প্রমুখ।
সেন্ট প্লাসিড্স স্কুল : মহান একুশ উপলক্ষে শিল্পী শওকত জাহানের উদ্যোগে ও পরিচালনায় আজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৩ টায় সেন্ট প্লাসিড্স স্কুল হলে চলমান স্পেশাল আর্ট ক্লাসের ছাত্র/ছাত্রীদের উন্মুক্ত চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। শিল্পী শওকত জাহানের সভাপতিত্বে প্রতিযোগিতার প্রধান অতিথি থাকবেন চট্টগ্রাম বিশ্ব বিদ্যালয়ের পালি বিভাগের প্রফেসর ড. জিন বোধি ভিক্ষু। বিশেষ অতিথি থাকবেন বাংলাদেশ রং তুলি আসরের চেয়ারম্যান নুরুল আজীম হিরু এবং সংগঠক ইন্তুমনি তালুকদার। শিশু থেকে অষ্টম শ্রেণির এবং শিল্পী শওকত জাহান পরিচালিত আর্ট স্কুল সমূহের ছাত্র ছাত্রীরা যোগদান করতে পারবে এবং প্রতিষ্ঠান থেকে কাগজ সরবরাহ করা হবে।

শিশু একাডেমি চট্টগ্রাম : জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় বাংলাদেশ শিশু একাডেমি চট্টগ্রামের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ২১ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টায় একাডেমি কার্যালয়ে শহীদ মিনারের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, সকাল পৌণে ৯টায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, সকাল সাড়ে ৯টা থেকে অনুষ্ঠিত হবে ক, খ ও গ গ্রুপে শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা। প্রতিযোগিতার বিষয় ক গ্রুপে শিশু থেকে ৩য় শ্রেণি পর্যন্ত-ইচ্ছেমত, খ গ্রুপে ৪র্থ শ্রেণি থেকে ৭ম শ্রেণি পর্যন্ত ফুলে ঢাকা শহীদ মিনার এবং গ গ্রুপে ৮ম শ্রেণি থেকে ১০ম শ্রেণি পর্যন্ত ৫২’র ভাষা আন্দোলন। সকাল সাড়ে ১০টা থেকে অনুষ্ঠিত হবে ক ও খ গ্রুপে শিশুদের হাতের সুন্দর লিখা প্রতিযোগিতা। এ প্রতিযোগিতায় ক গ্রুপে ২য় শ্রেণি থেকে ৪র্থ শ্রেণি পর্যন্ত এবং খ গ্রুপে ৫ম থেকে ৭ম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করতে পারবে। সকাল ১১টায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হবে। সকল বিষয়ের প্রতিযোগিতার কাগজ কর্তৃপক্ষ সরবরাহ করবে এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদি প্রতিযোগিদের সঙ্গে আনতে হবে।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 165 People

সম্পর্কিত পোস্ট