চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০১ অক্টোবর, ২০২০

সর্বশেষ:

লেখকের দৃষ্টিতে বইমেলা

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ৫:৩৯ পূর্বাহ্ণ

লেখকের দৃষ্টিতে বইমেলা

কবি শেখর দেব। লিখছেন এক যুগেরও বেশি সময় ধরে। সরকারি চাকরির পাশাপাশি সদা ব্যস্ত লেখালেখিতে। এরই মধ্যে প্রকাশিত হয়েছে বেশ কটি কবিতার বইসহ প্রবন্ধের বইও। মূলত কবিতা চর্চা হলেও সাহিত্যের অন্য শাখাতেও সমানভাবে লিখে যাচ্ছেন। এবার অমর একুশে বইমেলাকে কেন্দ্র করে দাঁড়িকমা প্রকাশনী প্রকাশ করেছে কবির কবিতাগ্রন্থÑ ‘পরান কথার ঘ্রাণ’। পূর্বকোণের পক্ষ হতে কবির কাছে কিছু প্রশ্ন করা হয়েছিল। কবি খুব সুন্দর করে তার জবাব দিয়েছেন। পাঠকদের জন্য উত্তরগুলো তুলে ধরা হলো। বই প্রকাশের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে কবি বলেনÑ ‘বই অনেক আছে আবার বই অনেকে প্রকাশ করে। আমি যেভাবে ভাবি বা লিখি সেভাবে লেখা বই পাই না বলেই নিজে লিখি ও প্রকাশ করি। তাছাড়া আমার ভাবনাটা মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে চাই বলেই বই প্রকাশ করি।’ বই প্রকাশের অনুভূতি নিয়ে কবি জানানÑ ‘প্রথম বই ছিল কবিতাগ্রন্থ ‘প্রতœচর্চার পাঠশালা’ (২০১৪)। অসাধারণ অনুভূতি ছিল

বইটি প্রকাশের। গ্রন্থমেলা ২০২০ এ আমার একটি কবিতাগ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে ‘পরান কথার ঘ্রাণ’। প্রকাশ করেছে দাঁড়িকমা প্রকাশনি। এই বইটি প্রকাশ করে অন্য ধরনের তৃপ্তি পেয়েছি কারণ বইটিতে নিখুঁত ছন্দের কাজ করতে পেরেছি। বই বিক্রি নিয়ে তিনি বলেনÑ ‘কবিতার পাঠক কম, বই বিক্রি কম হতেই পারে। তাছাড়া কবিতা তো নিজের আনন্দেই লিখি। বই বিক্রি হলে প্রকাশক খুশি হয়। প্রকাশকের খুশি অবশ্যই লেখককে আনন্দ দেয়।’
বই প্রকাশে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় প্রসঙ্গে বলেনÑ ‘নিজের সর্বোচ্চ শ্রম ও মেধাটা বইয়ে আছে কি না তা দেখা দরকার খুব।’ তরুণ লেখকদের উদ্দেশ্যে কবি বলেনÑ ‘লিখতে হলে পড়তে হয়। পাঠ নেয়ার কোন বিকল্প নেই।’

এবারের প্রকাশিত বই সম্পর্কে কবি জানানÑ ‘বইয়ে মূলত ৫০ টা কবিতা আছে, বেশিরভাগ কবিতা অক্ষরবৃত্ত ও মুক্তক অক্ষরবৃত্তে লেখা, কিছু কবিতা মাত্রাবৃত্ত ও গদ্যে লেখা। একটি দীর্ঘ কবিতা আছে মুক্তক অক্ষরবৃত্তে লেখা। বইমেলা নিয়ে তিনি বলেনÑ ‘এটা অবশ্যই পজেটিভ। তবে বই মেলা শুধু ফেব্রুয়ারিতে সীমাবদ্ধ না করে বছর জুড়ে বিভিন্ন সময়ে করা উচিত। এ ক্ষেত্রে বাংলা একাডেমির এগিয়ে আসা উচিত।’

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 78 People

সম্পর্কিত পোস্ট