চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০

বাঁশখালীর জলকদর খালে নৌকাডুবে নিহত ১, নিখোঁজ ১ শিশু

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ১:১৩ অপরাহ্ণ

বাঁশখালী  সংবাদদাতা

বাঁশখালীর জলকদর খালে নৌকাডুবে নিহত ১, নিখোঁজ ১ শিশু

বাঁশখালীর কাথারিয়া থেকে কুতুবদিয়া দরবার শরীফে ওরশে যাওয়ার পথে জলকদর খালে অতিরিক্ত যাত্রীবোঝাই নৌকাডুবে মোহাম্মদ আক্কাছ (৩০) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আলী আকবর (২০) নামে এক যুবক আহত হয়েছেন এবং মিনহাজ (১০) নামে এক শিশু নিখোঁজ রয়েছে।

আজ বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টার দিকে কাথারিয়া ইউনিয়নের জলকদর খালের চুনতি বাজারের দক্ষিণে বেদখলটেক নামক স্থানে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে।

দুর্ঘটনাস্থলে বাঁশখালী ফায়ার সার্ভিস এর কর্মীরা নিখোঁজ যাত্রীদের উদ্ধারে তল্লাশি চালিয়ে যাচ্ছে। থানা পুলিশ দলও ঘটনাস্থলে উপস্থিত রয়েছেন।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, কাথারিয়া ইউনিয়নের চুনতি বাজার স্থান হতে ১নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা জাহেদুল ইসলামের মালিকানাধীন নতুন ইঞ্জিন চালিত বোটে ৫০-৬০ জন যাত্রী নিয়ে কুতুবদিয়া দরবার শরীফে ওরশে যাচ্ছিল। চুনতি বাজার থেকে আধা কিলোমিটার দূরবর্তী বেদখলটেক নামকস্থানে পৌঁছলে ইঞ্জিন চালিত বোটটি উল্টে যায়। এই সময় সাঁতার না জানা যাত্রীরা পানিতে ডুবে যায়। স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে ২ জনকে হাসপাতালে নিয়ে আসে। কাথারিয়া ১নং ওয়ার্ডের বাঘমারা গ্রামের মৃত রৌশনজ্জামানের ছেলে মোহাম্মদ আক্কাছকে (৩০)জরুরী বিভাগে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এছাড়াও আলী আকবর (২০) নামে একজনকে আশংকাজনক অবস্থায় ভর্তি করা হয়েছে।

সাবেক ইউপি সদস্য মোহাম্মদ জাকের জানান, বোটের মালিক মোহাম্মদ জাহেদুল ইসলাম নিজেই নতুন বোট তৈরি করে নিজেই পরিচালনা করে যাত্রীদেরকে কুতুবদিয়ায় নিয়ে যাচ্ছিল। ইঞ্জিন বোটটির চালক অদক্ষ হওয়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। আরও ১জন শিশু নিখোঁজ রয়েছে। বাঁশখালী হাসপাতালের ডাক্তার শাহিদ চৌধুরী বলেন, ‘জলকদরখালে ইঞ্জিন চালিত বোট ডুবির ঘটনায় বাঁশখালী হাসপাতালে আনার আগেই মোহাম্মদ আক্কাছ মারা গেছে। আহত ১ জনকে ভর্তি দেওয়া হয়েছে। ’

বাঁশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল করিম মজুমদার বলেন, ‘ইঞ্জিন চালিত বোট ডুবির ঘটনা জানার পর কাথারিয়া জলকদর খাল এলাকা পুলিশ পৌঁছানো হয়েছে। ঐ ঘটনায় ১ জন মারা গেছেন। ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকর্মীরা রয়েছেন।

 

 

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
The Post Viewed By: 183 People

সম্পর্কিত পোস্ট