চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৯ মে, ২০২০

সর্বশেষ:

হাতে আঁকা বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার প্রতিকৃতি শিল্পকলায়

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ৬:১৩ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

হাতে আঁকা বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার প্রতিকৃতি শিল্পকলায়

১শ’ শিল্পীর সম্মিলিত হাতে আঁকা ছবিতে ফুটে উঠেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিকৃতি। বঙ্গবন্ধু শুধু একটি মানুষের নাম নয়, একটি দেশ ও জাতির নাম। বাঙালির মুক্তির প্রচেষ্টায় যাঁর জীবনের বেশি ভাগ সময় কেটেছে জেলে। আজ তাঁরই সুযোগ্য কন্যা তাঁর স্বপ্নের বাংলাদেশকে একটু একটু করে সামনের দিকে এগিয়ে নিচ্ছেন। শিক্ষা, সংস্কৃতি

থেকে শুরু করে দেশ এড়িয়ে যাচ্ছে সব দিক থেকে। ২০৪১ সালের মধ্যে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ বিশ্বের উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হবে। তাই আমাদের শিশুদের বঙ্গবন্ধুর কর্ম ও জীবনীর সাথে পরিচয় করে দিতে হবে। তারাই একদিন দেশের নেত্রীত্ব দিবে। শিল্পকলায় বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ছবি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির
মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকি একথা বলেন।

গতকাল রবিবার বিকেলে শিল্পকলা একাডেমিতে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি’র আয়োজনে, বাংলাদেশ চারুশিল্পী সংসদ ও চট্টগ্রাম জেলা শিল্পকলা একাডেমি’র সহযোগিতায় বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ হাতে আঁকা দুইটি ছবিসহ জয়নুল আবেদিন আর্ট গ্যালারিতে শেখ হাসিনার বিভিন্ন রকম তৈলচিত্র, ক্যামেরা ফ্রেমে বন্ধী ছবি ও রাষ্ট্রীয় কাজে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র প্রধানদের সাথের ছবি নিয়ে ১২ দিনের এক চিত্র প্রদর্শনী শুরু হয়। এতে শেখ হাসিনাকে নিয়ে দেশবরেণ্য শিল্পীদের আঁকা শিল্পকর্ম ও তাঁর সংগ্রামী জীবনের বিভিন্ন পর্যায়ের আলোকচিত্র প্রদর্শিত হয়েছে। প্রদর্শনীতে স্থান পেয়েছে প্রায় ৮০টি ছবি। প্রদর্শনী চলবে ২১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন চিত্রশিল্পী আবুল মনসুর, চারুকলা ইনস্টিটিউটের সাবেক পরিচালক শায়লা শারমিন সাথী ও জেলা শিল্পকলা একাডেমি’র সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম বাবু।

এসময় অনুষ্ঠানে অতিথিরা বলেন, মুজিব বর্ষে বঙ্গবন্ধুকে স্মরণীয় করে রাখতে শুধু বাংলাদেশেই নয়, বিশ্বের সবচেয়ে বড় ছবি অঙ্কন করা দরকার। সামনেই আসছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। এসময় প্রতিটি এলাকার ভোটারদের গুরুত্বপূর্ণ দাবিগুলোর মধ্যে একটি দাবি হওয়া উচিত প্রতিটি এলাকায় শিশুদের জন্য একটি কালচারাল সেন্টার খোলা। যেখানে শিশুরা বিনা বাধায় সাংস্কৃতিক শিক্ষা গ্রহণ করবে। এতে শিশুরা ছোট থেকেই সাংস্কৃতিক শিক্ষা অর্জন করে সুস্থ মানসিক বিকাশের সুযোগ পাবে। এছাড়া বাংলা ভাষাকে সর্বস্তরের মানুষের কাছে তুলে ধরতে হবে। কারণ বাংলা ভাষা আমাদের মাতৃভাষা। আলোচনা শেষে শিল্পীদের নানা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে মুখরিত হয়ে উঠে অনুষ্ঠান। ছবি প্রদর্শনী সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। প্রতিদিন বিকাল ৪টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শিল্পকলা একাডেমি’র আর্ট গ্যালারির ২য় ও ৩য় তলায় প্রদর্শিত হবে ছবি।

The Post Viewed By: 153 People

সম্পর্কিত পোস্ট