চট্টগ্রাম বুধবার, ২৭ মে, ২০২০

৩৪৫ কোটি টাকার ফ্ল্যাট-প্লট বুকিং

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ৬:১৩ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

সাড়া জাগিয়ে শেষ হলো রিহ্যাব ফেয়ার

৩৪৫ কোটি টাকার ফ্ল্যাট-প্লট বুকিং

সাড়া জাগিয়ে শেষ হলো আবাসন প্রতিষ্ঠানের সর্ববৃহৎ মেলা রিহ্যাব ফেয়ার-২০২০। এবারের ফেয়ারে ৪৯৮টি ফ্ল্যাট ও ১০৯টি প্লট বুকিং দিয়েছে ক্রেতারা। যার মোট মূল্য ৩শ ৪৫ কোটি টাকা। এক সময় মন্দাবস্থায় থাকা আবাসন খাতের অবস্থা আগের চেয়ে অনেক ভালো অবস্থানে রয়েছে। যদিও কিছু প্রতিবন্ধকতার কথা জানিয়ে আবাসন ব্যবসায়ীরা বলছেন, ব্যাংক ঋণের উচ্চ সুদহার ও দীর্ঘমেয়াদি কিস্তি সুবিধার ব্যবস্থা করলে দেশের অর্থনীতিতে বড় অবদান রাখা এ খাতের পরিধি আরও বৃদ্ধি পেতে থাকবে। ‘‘স্বপ্নীল আবাসন সবুজ দেশ, লাল সবুজের বাংলাদেশ” স্লোগানে গত বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয় ১৩তম

রিহ্যাব ফেয়ার ২০২০। ৫৫টি প্রতিষ্ঠানের ৭৩ স্টল নিয়ে এ মেলার আয়োজন করে আবাসন প্রতিষ্ঠানদের সংগঠন রিয়েল এস্টেট এন্ড হাউজিং এসোসিয়েশন অব বাংলাদশে (রিহ্যাব)।

সমাপনী অনুষ্ঠানে রিয়েল এস্টেট এ- হাউজিং এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব) ভাইস প্রেসিডেন্ট ও চট্টগ্রাম রিজিওনাল কমিটির চেয়ারম্যান আবদুল কৈয়ূম চৌধুরী জানান, দেশের আবাসন খাতের অবস্থা এখন আগের চেয়ে অনেক ভালো অবস্থানে রয়েছে। যার প্রত্যক্ষ প্রতিফলন এবারের মেলা। চারদিনব্যাপী এবারের মেলায় ৪৯৮টি ফ্ল্যাট ও ১০৯টি প্লট বুকিং দিয়েছে ক্রেতারা। এর মধ্যে মেলার শেষ দিনে সবচেয়ে বেশি ফ্ল্যাট ও প্লট বিক্রি হয়। এমন চিত্র দেখে বুঝা যায় দেশের আবাসন খাতের অবস্থা অতীতের চেয়ে অনেক ভালো স্থানে পৌঁছেছে। মেলার শুরু থেকেই ক্রেতা-দর্শনার্থীর উপস্থিতিতে মেলা প্রাণ ফিরে পেয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, মেলা শুরুর দিন থেকেই মেলা প্রাঙ্গণে প্রচুর দর্শনার্থী ও ক্রেতারা এসে ভিড় করেছেন। তার মধ্যে বেশিরভাগই পছন্দের ফ্ল্যাট ও প্লট বুকিং দিয়েছেন।

সমাপনী অনুষ্ঠানে রিহ্যাব চেয়ারম্যান আবদুল কৈয়ূম জানান, ফেয়ারের এই ৪ দিনে প্রায় ১৪ হাজার ক্রেতা দর্শনার্থী মেলা প্রাঙ্গণ ভিজিট করেছেন। ফেয়ারে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানসমূহ ক্রেতাদের জন্য যে সকল অফার নিয়ে এসেছে মেলা চলাকালীন সাপ্তাহিক, সরকারি ছুটি এবং ব্যাংক বন্ধ থাকার কারণে ফেয়ার শেষ হওয়ার পরেও আগামী ৭দিন কোম্পানির নিজস্ব অফিসে সে সকল সুযোগ সুবিধা দেওয়া হবে।
সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রিহ্যাবের পরিচালক ও চট্টগ্রাম রিজিওনাল কমিটির কো-চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার দিদারুল হক চৌধুরী, মাহবুব সোবহান জালাল তানভির প্রমুখ।

The Post Viewed By: 132 People

সম্পর্কিত পোস্ট