চট্টগ্রাম সোমবার, ২৫ মে, ২০২০

সর্বশেষ:

মানোন্নয়নে উত্তীর্ণ ৮২ শিক্ষার্থীকে ভর্তির নির্দেশ হাইকোর্টের চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয়

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ৬:১২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা হ চবি

মানোন্নয়নে উত্তীর্ণ ৮২ শিক্ষার্থীকে ভর্তির নির্দেশ হাইকোর্টের চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয়

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের মানোন্নয়নে উত্তীর্ণ ৮২ শিক্ষার্থীকে ভর্তিপ্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। পৃথক চারটি রিটের প্রেক্ষিতে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ গতকাল (রোববার) এই আদেশ দেন। তিনটি ইউনিটের (এ, বি ও সি) মেধাতালিকায় থাকা ও রিটকারী ৮২ শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে হাইকোর্ট এ নির্দেশ দেন। তবে ডি ইউনিটে মানোন্নয়নে উত্তীর্ণদের ফলাফল প্রকাশ না করায়, সেই ইউনিটের ক্ষেত্রে রিট আবেদনকারীর ভর্তির বিষয়টি বিবেচনা করতে বলা হয়েছে। দুটি রিট আবেদনকারীদের আইনজীবী জ্যোতির্ময় বড়ুয়া বলেন, ‘৮২ শিক্ষার্থীর তিন ইউনিটে বিষয় নির্বাচনসহ ভর্তিপ্রক্রিয়া শেষ করতে আদালত আদেশ দিয়েছেন। তবে একজন শিক্ষার্থী আলাদা

রিট করেছিলো, তার ‘ডি’ ইউনিটের ফলাফল প্রকাশ ও ভর্তির বিষয়টি বিবেচনা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে’। এ বিষয়ে জানতে চাইলে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সদস্য সচিব এস এম আকবর হোছাইন বলেন, ‘আমরা এখনো হাইকোর্টের লিখিত নির্দেশ পাইনি। পাওয়ার পর আমাদের পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে’। প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালে উচ্চ মাধ্যমিকে মানোন্নয়ন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে চবির ভর্তি পরীক্ষায় মেধাতালিকায় স্থান পায় কিছু শিক্ষার্থী। এরপর তারা জানতে পারে, ২০১৮ সালে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় অংশ নিয়ে চবিতে ভর্তির যোগ্যতা অর্জন করার পরও যারা ২০১৯ সালে আবার মানোন্নয়ন পরীক্ষা দিয়েছেন, তারা ভর্তির জন্য যোগ্য বলে বিবেচিত হবে না। অনলাইনে ১১ হাজার ৭৪১ জন মানোন্নয়নকৃত শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে মেধাতালিকায় স্থান পাওয়ার পর এমন সিদ্ধান্ত অন্যায় বলে দাবি করে মানোন্নয়নে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন, মানোন্নয়নকৃত শিক্ষার্থীদের আবেদন যোগ্যতা নিয়ে ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে অস্পষ্টতা ছিল। কিন্তু কর্তৃপক্ষ বারংবার এসব অভিযোগ অস্বীকার করে। তাদের দাবি বিজ্ঞপ্তিতে অস্পষ্ট কিছু ছিল না। পরে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা ভর্তি চেয়ে টানা এক সপ্তাহ ক্যাম্পাসে আন্দোলন করলেও উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের ভর্তি না করতে অনড় থাকে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ফলে মেধাতালিকায় থাকার পরও ভর্তিপ্রক্রিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের এমন নিষ্ক্রিয়তাকে চ্যালেঞ্জ করে গত ১১ নভেম্বর চারটি রিট করে ৮৩ শিক্ষার্থী।

The Post Viewed By: 54 People

সম্পর্কিত পোস্ট