চট্টগ্রাম শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

বেড়েছে মাস্ক বিক্রি, দাম দ্বিগুণ করোনা ভাইরাস আতঙ্ক

২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ৩:২৩ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

বেড়েছে মাস্ক বিক্রি, দাম দ্বিগুণ করোনা ভাইরাস আতঙ্ক

নগরীতে করোনা ভাইরাস আতঙ্কে বেড়েছে বায়ু ও জীবানু থেকে প্রতিরোধে ব্যবহৃত সব ধরনের মাস্ক বিক্রি। সেই সাথে খুচরা বাজারে প্রায় দ্বিগুণ হারে বেড়েছে মাস্কের বিক্রয় মূল্য। গতকাল শনিবার ছুটির দিন বিভিন্ন এলাকায় সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ৫ টাকার সার্জিক্যাল মাস্ক বিক্রি হচ্ছে ১০ টাকায়। এছাড়া আমদানি করা ফিল্টার মাস্ক ৪০ টাকার পরিবর্তে বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকায়।

খুচরা বিক্রেতারা বলছেন পাইকারিতে বেড়েছে মাস্কের ক্রয় মূল্য। তাই খুচরা বাজারেও বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে। গতকাল বিকেলে নগরীর জিইসি মোড়ের সেন্ট্রাল শপিং কমপ্লেক্সের সামনে মাস্ক বিক্রেতা মো. ওমর ফারুক ও মো. নুর হোসেন পূর্বকোণকে বলেন, কিছু দিন আগেও ৫০ পিসের সার্জিক্যাল মাস্ক প্যাকেটের ক্রয় মূল ছিল ১০০ থেকে ১২০ টাকা, সেটি এখন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২০০ থেকে ২২০টাকা। তাই খুচরা বাজারে ৫ টাকার মাস্ক ১০ টাকায় বিক্রি করতে হচ্ছে। আর আমদানি করা বিদেশি ফিল্টার মাস্ক বাজারে নেই বললেই চলে। এই সংকটের কারণে ফিল্টার মাস্ক খুচরায় ৩০ থেকে ৫০ টাকার বদলে বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকায়। তিনি আরো জানান, এই মাস্ক আগের পাইকারিতে কিনতে ডজন প্রতি খরচ পড়তো ২৫০ টাকা। কিন্তু এখন সেই মাস্ক কিনতে হচ্ছে ৫০০ টাকার বেশি দিয়ে। যার ফলে খুচরা বাজারেও দাম বেড়েছে। এদিকে রিয়াজউদ্দিন বাজার তামাকুমন্ডি লেইনের এম কে সুপার কমপ্লেক্সের পাইকারি বিক্রেতা তারেক স্পোর্টস এর স্বত্বাধিকার মো. তারেক পূর্বকোণকে জানান, চায়না থেকে যে ফিল্টার মাস্ক আমদানি করা হয়েছিল সেটি এখন আর আমদানি হচ্ছে না। কারণ

করোনভাইরাসের জন্য চিনেই মাস্ক সংকট দেখা দিয়েছে। যার কারণে আমদানি করা ফিল্টার মাস্ক বিক্রিতে দাম বেড়েছে। তবে সার্জিক্যাল মাস্ক ও দেশিও ফেব্রিক বা কাপড়ের মাস্কের দাম বাড়েনি।

মাস্ক ব্যবহারকারী মাজহারুল ইসলাম নোমান বলেন, পরিবারের সবাই স্বাস্থ্য সচেতনতায় আগে থেকেই মাস্ক ব্যবহার করে। কিন্তু এখন করোনাভাইরাসের কারণে আরেকটু বেশি সচেতন হয়েছে সবাই। তবে যে মাস্ক নিয়মিত ৬টাকায় কেনা হতো সেগুলো এখন বেড়ে ১০ টাকা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, ব্যবসায়ীরা কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির মাধ্যমে মুনাফা বাড়ানোর সুযোগটা কাজে লাগাচ্ছে। আমার মনে হয় না দেশে মাস্কের সংকট আছে।
চীনের প্রায় প্রতিটি অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসে মারা গেছে দুই শতাধিক মানুষ। শুধু চীনেই আক্রান্ত হয়েছে সাড়ে নয় হাজারের বেশি মানুষ।
এদিকে, করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে সারা চীনসহ বিশ্বের ১৬টি দেশে। এমন পরিস্থিতিতে বিশ্বজুড়ে জরুরি স্বাস্থ্য সতর্কতা ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
The Post Viewed By: 424 People

সম্পর্কিত পোস্ট