চট্টগ্রাম রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

সাজেক থেকে ফিরছিলেন পর্যটক শ্যামলীর কোচে যৌন নিপীড়ন, গ্রেপ্তার ১

২৭ জানুয়ারি, ২০২০ | ৬:১৭ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা হ রামগড়

সাজেক থেকে ফিরছিলেন পর্যটক শ্যামলীর কোচে যৌন নিপীড়ন, গ্রেপ্তার ১

খাগড়াছড়ি থেকে ঢাকায় ফেরার পথে শ্যামলী পরিবহনের একটি নৈশ কোচে কয়েকজন নারী পর্যটক যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছেন। এ অভিযোগে ঐ বাসের সুপারভাইজার মামুনুর ইসলাম মামুন (২৫) কে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। গতকাল ২৫ জানুয়ারি রাতে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, সাজেক ভ্রমণ শেষে ৩৪ জন নারী পর্যটক শনিবার রাত ৯টায় শ্যামলী পরিবহনের একটি নৈশ কোচে ( নম্বর ঢাকা মেট্রো-ব-১১-৬৪৪৭)) খাগড়াছড়ি সদর থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হন। তারা সবাই ঢাকার একটি ভ্রমণ সংগঠনের সদস্য। বাসটি রাত ১১টার দিকে রামগড়ে পৌঁছলে সুপারভাইজার মামুনুর ইসলাম মামুন ঘুমন্ত এক নারী পর্যটকের শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়। এসময় ওই যাত্রী সুপারভাইজারের হাত চেপে ধরে চিৎকার দেন এবং লাইট অন করতে বলেন। পরে তিনি ৯৯৯ নম্বরে কল করলে রামগড় থানার ওসি’র নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে অভিযুক্ত সুপারভাইজার মামুনকে আটক করেন। ওসি মোহাম্মদ শামসুজ্জামান বলেন, ভিকটিম একজন ব্যারিস্টার। আটক সুপারভাইজার ঐ পর্যটকদলের আরও ৪-৫ জন নারীকে একইভাবে যৌন নিপীড়ন করেছে বলে তারা অভিযোগ করেন। ওসি আরও জানান, শনিবার রাতেই নিপীড়নের শিকার ওই ব্যারিস্টার বাদি হয়ে রামগড় থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন-২০০০/সংশোধন/০৩ এর ১০ ধারায একটি মামলা দাযের করেছেন, যার নম্বর- ০৩, তারিখ ২৬/০১/২০২০।

গ্রেপ্তারকৃত মামুনুর ইসলাম মামুন নীলফামারীর ডোমার উপজেলার সাভার গ্রামের রাফিউল ইসলামের ছেলে। সোমবার সকালে তাকে খাগড়াছড়ি জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করলে আদালত জেলা কারাগারে প্রেরণ করেন।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 266 People

সম্পর্কিত পোস্ট