চট্টগ্রাম সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০

পণ্যের মোড়ক নিয়ে বিএসটিআইয়ের উদাসীনতা মানা হচ্ছে না বাংলায় ৫ তথ্য

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ১২:৫৫ পূর্বাহ্ণ

পণ্যের মোড়ক নিয়ে বিএসটিআইয়ের উদাসীনতা মানা হচ্ছে না বাংলায় ৫ তথ্য

ভোক্তাদের সুবিধার্থে পণ্যের মোড়কে ৫টি জরুরি তথ্য বাংলায় লেখা বাধ্যতামূলক করেছে সরকার। ২০১৮ সালের ১৪ নভেম্বর গেজেট প্রকাশ করে সরকার। কিন্তু বাস্তবে দেখা যায়, আইন প্রয়োগে বিএসটিআইয়ের উদাসীনতায় তা মানা হচ্ছে না।
বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডাস এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশনের (বিএসটিআই) চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, অর্ধশতাধিক প্রতিষ্ঠানের ২০৯টি পণ্যের জন্য মোড়ক নিবন্ধন সনদ নেওয়া হয়।
আইনে রয়েছে, পণ্যের মোড়কের উপরিভাগে বাংলা ভাষায় স্পষ্ট অক্ষরে ৫টি তথ্য থাকতে হবে। এর মধ্যে রয়েছে, মোড়কের ভেতরের পণ্যের পরিচয়, নেট পরিমাণ বা সংখ্যা, খুচরা বিক্রয় মূল্য, পণ্য-উৎপাদন ও মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ, উৎপাদনকারী, মোড়কজাতকারী, পরিবেশক বা বিপণনকারীর নাম এবং কারখানা ও প্রতিষ্ঠানের পূর্ণ ঠিকানা।
মামুনুর রহমান বলেন, কোনো ব্যক্তি যদি আইনের বিধি-বিধান লঙ্ঘন করে মোড়কজাত আকারে যেকোনো পণ্য বিক্রি, পরিবেশন, সরবরাহ বা হস্তান্তর করেন, তাহলে এক বছরের কারাদ- বা অনূর্ধ্ব এক লাখ টাকা অর্থদ- বা উভয় দ-ে দ-িত হবেন।
সরকার দেশের ভোক্তাদের পণ্যের সঠিক মান, ওজন বা সংখ্যা, মূল্য, মেয়াদ, উৎপাদনকারীর ঠিকানা ইত্যাদি বাংলাভাষায় নিশ্চিত করতে আইন প্রণয়ন করে।
কনজ্যুমার এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) চট্টগ্রাম বিভাগীয় সভাপতি এসএম নাজের হোসাইন বলেন, মোড়কে ৫টি তথ্য বাংলায় মুদ্রণে আইন হলেও বিএসটিআই’র উদাসীনতায় এখনো ভোক্তারা সুফল পাচ্ছে না। তিনি বলেন, দেশের ভোক্তারা সবাই ইংরেজি লিখতে, পড়তে পারে না। তাই বাংলা ভাষায় ৫টি লিখা বাধ্যবাধকতা করে আইন করেছে সরকার। কিন্তু বিএসটিআই’র তদারকি, নজরদারি, উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি, অভিযান না থাকায় বেশিরভাগ পণ্য মোড়কে ইংরেজিতে লেখা হচ্ছে। এছাড়াও বিভিন্ন পণ্যের মোড়ক বা কৌটায় শব্দগুলো লিখা হয়, খুবই ছোট আকারের। যা সহজে পাঠযোগ্য নয়। তিনি আরও বলেন, এসব অনিয়ম ও আইন ভঙ্গের বিরুদ্ধে তদারকি না থাকায় আইন না মানার প্রবণতা বেড়েই চলেছে। যদি আইন প্রয়োগ করা হতো, তাহলে কোম্পানিগুলো সংশোধন হয়ে যেত।
নিরাপদ খাদ্য আইনের ১৫ ধারার ২ উপ-ধারায় বলা হয়েছে, বাংলা ও ইংরেজি পাঠের মধ্যে বাংলা পাঠ প্রাধান্য পাইবে।

লেখক ঁ নিজস্ব প্রতিবেদক

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
The Post Viewed By: 158 People

সম্পর্কিত পোস্ট